দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম তৃণমূল পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে হবে: দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম বাস্তবায়ন বিষয়ক কর্মশালায় বক্তব্য রাখছেন চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ
দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম বাস্তবায়ন বিষয়ক কর্মশালায় বক্তব্য রাখছেন চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম থেকে পিছিয়ে আসার কোনও সুযোগ নেই

দুর্নীতি দমন কমিশন দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রমকে সবচেয়ে গুরুত্ব দিয়ে কার্যক্রম চালাচ্ছে । এ কার্যক্রম থেকে পিছিয়ে আসার কোনও সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

শনিবার (২৪ আগস্ট) দুদক প্রধান কার্যালয়ের অডিটোরিয়ামে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল (এনআইএস) ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম বাস্তবায়ন বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘দুদক কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেওয়া হচ্ছে যাতে তাদের কর্মস্পৃহা আরও বিকশিত হয় এবং নতুন উদ্যমে দুর্নীতি প্রতিরোধে নিজেদের দৃঢ়ভাবে আত্মনিয়োগ করে।’

দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম থেকে পিছিয়ে আসার কোনও সুযোগ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে কর্মকর্তারাই মুখ্য ভূমিকা পালন করবেন। তাই মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের দুর্নীতি প্রতিরোধে নিবিড়ভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।’

সংস্থাটির চেয়ারম্যান বলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধে স্থানীয় জেলা প্রশাসনসহ অন্যান্য বিভাগ বা সংস্থার সহযোগিতার প্রয়োজন হলে তাদের সহযোগিতা নিয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। দুদকের প্রতিরোধমূলক কার্যক্রম হবে অন্তর্ভুক্তিমূলক। দুদক নৈতিক মূল্যবোধসম্পন্ন মানুষের প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে। সবাই একই ছাতার ছায়ায় থেকে তৃণমূল পর্যায়ে দুর্নীতি প্রতিরোধ কার্যক্রম ছড়িয়ে দেবেন।’

ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘দুদকের প্রতিরোধ অনুবিভাগের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একটি টাইম-বাউন্ড কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। প্রতিটি কার্যক্রম বাস্তবায়নের পাশাপাশি তদারকি ও মূল্যায়ন করতে হবে। কারণ দুর্নীতি প্রতিরোধ দুদকের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ একটি আইনি ম্যান্ডেট। এর সঙ্গে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মূল্যবোধ ও নৈতিকতার বিষয়টি জড়িত। বর্তমান প্রজন্ম যদি সঠিকভাবে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মননে সুনীতি, চারিত্রিক সততা, নৈতিক মূল্যবোধ বপন করতে না পারে, তাহলে আলোকিত প্রজন্ম সৃষ্টি হবে না।’

‘দুদক সীমিত সাধ্যের মধ্যেও প্রায় ২৮ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তরুণ প্রজন্মের মাঝে সততা ও নৈতিক মূল্যবোধ বিকশিত করতে বহুমাত্রিক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। অন্ততপক্ষে এই ২৮ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি প্রতিরোধে দুদকের বার্তা পৌঁছে দেয়া সম্ভব হয়েছে বলে ইকবাল মাহমুদ উল্লেখ করেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here