একসঙ্গে ৫ সন্তান প্রসব

কুমিল্লার লাকসামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে আজ বুধবার এক নারী একসঙ্গে পাঁচ সন্তান প্রসব করেছেন। নবজাতকদের মধ্যে তিনটি পুত্র এবং দুটি কন্যা সন্তান। প্রসূতির নাম শারমিন আক্তার, বয়স ২৫। তিনি উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের পোলাইয়া খোন্দকার বাড়ির হাফেজ মাওলানা মো. মিজানুর রহমানের স্ত্রী।

হাসপাতাল ও প্রসূতির পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের মো. মিজানুর রহমানের অন্তসত্ত্বা স্ত্রী শারমিন বেগমের প্রসব ব্যথা নিয়ে আজ বুধবার সকাল ৯টায় লাকসাম জেনারেল হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেডে ভর্তি হন। ওই হাসপাতালের গাইনি ও প্রসূতি বিশেষজ্ঞ লতিফা ডা. আহমেদ লতার তত্ত্বাবধানে বিনা অস্রোপচারে সকাল পৌনে ১০টায় স্বাভাবিকভাবে পাঁচ সন্তান প্রসব করেন।

প্রসূতি শারমিন আক্তারের স্বামী মো. মিজানুর রহমান জানান, কয়েক বছর আগে তাঁর স্ত্রী একটি সন্তান প্রসব করেন। কিন্তু ওই সন্তানটি মারা যায়। এখন আল্লাহর অশেষ রহমতে আমাকে আবারো ৫টি সন্তান দিয়েছেন। সেজন্য মহান আল্লাহর কাছে অনেক শোকরিয়া জানাই। এখন পর্যন্ত সন্তানগুলো ও তাদের মা সুস্থ আছে।
লাকসাম জেনারেল হাসপাতালের গাইনি ও প্রসূতি বিশেষজ্ঞ ডা. লতিফা আহমেদ লতা জানান, নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই (সাত মাসে) ওই নারীর সন্তান প্রসব হয়েছে। তবে নবজাতকরা ও মা সুস্থ থাকলেও নবজাতকদের ওজন কম থাকায় কিছুটা ঝুঁকি রয়েছে। তাই তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
স্বামী মো. মিজানুর রহমান তাঁর স্ত্রী ও সন্তানদের জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here