পাবনায় করোনা ওয়ার্ডের দায়িত্ব পাওয়ার পর চিকিৎসক নিরুদ্দেশ

পাবনা জেনারেল হাসপাতাল
পাবনা জেনারেল হাসপাতাল

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ ওয়ার্ডে দায়িত্ব দেয়ার পর থেকে এক চিকিৎসককে খুঁজে পাচ্ছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত ওই চিকিৎসকের নাম সরিফুল ইসলাম।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের ধারণা, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে তিনি ‘পালিয়ে গেছেন’। ওই চিকিৎসকের সহকর্মীরা একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তার ব্যবহৃত মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। তার বাসায় লোক পাঠিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে হাসপাতালে আসা চিকিৎসা প্রত্যাশী সাধারণ মানুষের মধ্যে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পাবনা কোভিড-১৯ ম্যানেজমেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. সালেহ মুহাম্মদ আলী বলেন, “সোমবার রাতে কোভিড ওয়ার্ডে ডা. সরিফুল ইসলামকে দায়িত্ব দেওয়া হলেও তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। এমনকি আজও তিনি হাসপাতালে আসেননি। এ বিষয়ে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিন্সিপল নিরঞ্জন বসাককে জানানো হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত তিনি দৃশ্যত কোনো ব্যবস্থা নেননি।”

প্রিন্সিপল নিরঞ্জন বসাক বলেন, “হাসপাতালের পক্ষ থেকে আমাকে জানানোর সঙ্গে সঙ্গেই আমি ডা. সরিফুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করি। তার মোবাইল বন্ধ থাকায় তার বাসায় লোক পাঠানো হয়েছে। সে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

এ বিষয়ে পাবনা সিভিল সার্জন ডা. মেহেদী ইকবাল বলেন, “এমন কোনো অভিযোগ আমার কাছে কেউ করেনি। এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। তবে কোনো চিকিৎসকের বিরুদ্ধে এমন সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here